admoc
Kal lo

,

admoc
Notice :

নতুন বছরে নায়িকারা

Untitled-15

বিনোদন ডেস্ক : বিদ্যা সিনহা মিম, নুসরাত ফারিয়া, পরীমনি, মাহিয়া মাহিগত বছর যে কজন নায়িকা ঢালিউড শাসন করেছেন, তাঁদের মধ্যে মাহিয়া মাহি, বিদ্যা সিনহা মিম, নুসরাত ফারিয়া ও পরীমনি অন্যতম। যদিও বছরটিতে ব্যবসাসফল ছবির সংখ্যা ছিল কম, তবু নানাভাবেই এই নায়িকারা আলোচনায় ছিলেন।
২০১৭ সালে বিদ্যা সিনহা মিমের ভালোবাসা এমনই হয়, ইয়েতি অভিযান, দুলাভাই জিন্দাবাদ’ এই তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় রচিত ‘কাকাবাবু’ সিরিজের ‘পাহাড় চূড়ায় আতঙ্ক’ অবলম্বনে নির্মিত ইয়েতি অভিযান-এ অভিনয় করে তিনি আলোচনায় এসেছিলেন। বাকি দুটি ছবিতে তাঁকে নিয়ে তেমন আলোচনা হয়নি।
নতুন বছরে এখন পর্যন্ত মিমের হাতে আছে দুটি ছবি। তা হলো আমি নেতা হব ও হামলা মামলা ঝামেলা। মিম বলেন, আমি নেতা হব ছবির শুটিং প্রায় শেষ। শুধু তিনটি গান বাকি। হামলা মামলা ঝামেলা ছবির শুটিংয়ের তারিখ ঠিক হয়নি। দুটি ছবিতেই মিমের বিপরীতে অভিনয় করেছেন শাকিব খান। ছবিগুলো নিয়ে তাই তিনি আশাবাদী।
সাবেক এই লাক্স তারকা বলেন, ‘হুট করে কোনো কাজ হাতে নিচ্ছি না। আলোচনা হবে, এ ধরনের কাজই করতে চাচ্ছি। সংখ্যায় নয়, বছরে দুটি মানসম্মত কাজ করতে চাই। গত বছর মুক্তি পাওয়া ঢাকা অ্যাটাক দিয়েই মাহিয়া মাহি চলচ্চিত্রের আলোচনায় আসতে পারতেন। হইচই ফেলে দেওয়া এই ছবিটিতে নায়িকা হিসেবে মাহিকে নিয়ে আলোচনার সৃষ্টি হয়নি। তবে নতুন বছরটি মাহির বছর হতে পারে। ডজন খানেক ছবিতে এই অভিনেত্রীকে নিয়ে বাজি ধরেছেন পরিচালকেরা। এরই মধ্যে জান্নাত ও পলকে পলকে তোমাকে চাই ছবির শুটিং শেষ। ফেব্রুয়ারি নাগাদ এই দুটি ছবি মুক্তি পেতে পারে। এই মুহূর্তে শুটিং করছেন মনে রেখ, হারজিৎ, প্রেমের বাঁধন, পবিত্র ভালোবাসা, অবতার, মন দেব মন নেব, তুই শুধু আমার, গোলাপতলীর কাজল প্রভৃতি ছবিতে।
ঢালিউড-কন্যা মাহি বলেন, ‘বর্তমান সময় ঢাকার চলচ্চিত্র কীভাবে দর্শকেরা নেবেন, তা আগে থেকে বলা যায় না। তবে আমি আশা হারাব না।’
ঢাকাই ছবির আরেক অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়ার প্রেমী ও প্রেমী, ধ্যাততেরিকি, বস ২ এই তিনটি ছবি গত বছর মুক্তি পেয়েছে। যৌথ প্রযোজনার ছবিতে তাঁকে বেশ দেখা যাচ্ছে। গত দুই বছরে বড় পর্দার অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে বেশ উন্নীত করেছেন তিনি।
নতুন বছরে এখন পর্যন্ত তাঁর ছবির ঝুলিটি খালি। নতুন বছরের ১৯ জানুয়ারি ইন্সপেক্টর নটি কে ছবিটি মুক্তি পাবে। গত বছরের শুটিং শেষ করা ছবি এটি। তারপরও এই ছবিটি দিয়েই  সারা বছর আলোচনায় থাকবেন বলে আশাবাদী এই নায়িকা। ফারিয়া বলেন, ‘বড় একটা কাজ নিয়ে আলোচনা চলছে। যেহেতু চূড়ান্ত নয়, তাই বলতে চাইছি না। ইন্সপেক্টর নটি কেমুক্তি পেলে সেটাই সারা বছর আমাকে বাঁচিয়ে রাখবে বলে আমার বিশ্বাস। দর্শক ছবিটি দারুণ উপভোগ করবেন।’
এদিকে বছর শেষে এসে পরপর দুটি ছবি মুক্তি পায় পরীমনির। ছবি দুটি হলো অন্তর জ্বালাও ইনোসেন্ট লাভ। কয়েক বছর আগের বেশ কয়েকটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় থাকলেও নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার খবর কমে গেছে পরীমনির। কয়েক মাস আগে সাইমনের বিপরীতে সর্বশেষ বাহাদুরী ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। তাই নতুন বছরে তাঁর ভরসা হতে পারে গিয়াসউদ্দিন সেলিমের স্বপ্নজাল ছবিটি। এই ছবি মুক্তির দিনক্ষণ ঠিক হয়নি এখনো। গত বছর ৩০ ডিসেম্বর রাতে স্বপ্নজাল ছবির প্রথম ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। ট্রেলার মুক্তির পর থেকেই পরীমনিকে ঘিরে প্রশংসা শুরু হয়েছে।
নতুন বছরের কাজ ও স্বপ্নজাল-এর ট্রেলার নিয়ে কথা বলতে পরীমনির সঙ্গে মুঠোফোনে ও ফেসবুকে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি তাঁকে।

Share Button
Share on Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী