নতুন বছরে ক্রিকেটারদের চাওয়া

0
24

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কিছুদিনের ছুটি কাটিয়ে আবার অনুশীলনে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। প্রথম আলোনতুন বছরে কী প্রত্যাশা বছর শেষে এই প্রশ্নটির মুখোমুখি তাঁদের হতেই হয়। ক্রিকেটাররাও যেন তৈরি থাকেন কিছু বলতে। বেশির ভাগ সময়ই ঘুরেফিরে আসে এক কথা। ‘নতুন বছরে আরও ভালো কিছু করতে চাই’, ‘আরও সাফল্য চাই’ এই তো! তবে এবার তাঁদের আছে একটা নতুন প্রত্যাশা। নতুন বছরে সমর্থকদের আরও কাছে, আরও পাশে চান ক্রিকেটাররা।
ব্যাটসম্যান মুমিনুল হকের প্রথম প্রত্যাশাই হলো সবাই যেন ভালো থাকে। সুস্থ থাকে। এরপর বললেন, ‘আমি চাই আমাদের দর্শক-সমর্থকেরা সব সময় আনন্দে থাকুক। হাসি-আনন্দে ভরে যাক তাদের জীবন। আর চাই তারা যেন আমাদের জন্য বেশি বেশি দোয়া করে। আমাদের আরও বেশি করে সমর্থন করে।’
২০১৮ সালকে স্বাগত জানাতে গিয়ে মাহমুদউল্লাহ, তামিম ইকবালও বলেছেন সমর্থকদের কাছে প্রত্যাশার কথা। টেস্ট দলের নতুন সহ-অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলছিলেন, ‘বিসিবি যেহেতু দায়িত্ব দিয়েছে, চেষ্টা করব সেটা ভালোভাবে পালন করতে। একই সঙ্গে কঠোর পরিশ্রম করে ভালো খেলতেও চেষ্টা করব। সে জন্য দর্শক-সমর্থকদের সমর্থনও আরও বেশি করে চাইব।’
নতুন বছরের জন্য তামিমের লক্ষ্য পরিষ্কার। বাংলাদেশ দলের হয়ে আরও বেশি ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলবেন, প্রত্যাশা এটাই, ‘২০১৭ সালটা আমার জন্য ভালো ছিল, বিশেষ করে ওয়ানডেতে। চেষ্টা থাকবে এটাকে আরও দীর্ঘ করার। সামনের সিরিজগুলোয় একই মানসিকতা ও আত্মনিবেদন নিয়ে চেষ্টা করব আরও ভালো করতে।’ ভক্তদের কাছে তাঁর চাওয়া, ‘আমার জন্য দোয়া করবেন, যাতে আমি নতুন বছরে আরও সফল হই। বাংলাদেশকে যাতে আরও বেশি ম্যাচ জেতাতে পারি।’
একই লক্ষ্য নিয়ে বছর শুরু করছেন মুমিনুল আর রুবেল হোসেন। পর্যাপ্ত সুযোগের অভাবে গত কয়েক বছর নিজেকে পুরোপুরি মেলে ধরতে পারেননি মুমিনুল। এবার সেই অতৃপ্তি ঘোচাতে চান দলের জন্য অবদান রেখে, ‘এত দিন যা করিনি, এবার তা-ই করার চেষ্টা করব। আমি যেন দলের জন্য অবদান রাখতে পারি। ম্যাচ জেতাতে পারি। বড় খেলোয়াড় হয়ে উঠতে পারি।’ পেসার রুবেল এই লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়তে চান বছরের শুরুতেই, ‘ত্রিদেশীয় সিরিজ আর শ্রীলঙ্কা সিরিজ দিয়ে বছর শুরু করব আমরা। দলে সুযোগ পেলে আমি চাইব বছরের শুরুতেই ভালো কিছু করতে। প্রথম ম্যাচেই যেন আমি ম্যাচ জেতানো বোলিং করতে পারি।’
শ্রীলঙ্কা ছাড়াও ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। আছে অস্ট্রেলিয়া সফরও। নতুন বছরে রুবেলের আরেকটা লক্ষ্য এই দলগুলোকে ঘিরেই, ‘আমি চাই, এ বছর বড় দলের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে এবং আমি সেই জয়ের অংশীদার হতে।’
নতুন বছরে ভক্ত-সমর্থকদের আরও পাশে চান ক্রিকেটাররা। কিন্তু বিনিময়ে তাঁরা কী দেবেন? প্রত্যাশা পূরণের দাবি তো তাঁদের কাছে সব সময়ই থাকে। তবে ভক্ত-সমর্থকদের কালই একটা জিনিস দিয়ে দিলেন তামিম-মাহমুদউল্লাহরা। নববর্ষের আন্তরিক শুভেচ্ছা।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here