মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে হবে : শেখ হাসিনা

0
51

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্দোলনের নামে ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে সদা সতর্ক থাকতে পুলিশ সদস্যদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ‘জাতীয় পুলিশ সপ্তাহ ২০১৮’ উপলক্ষে তাঁর তেজগাঁও  কার্যালয়ে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এ নির্দেশ দেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আগুনে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা, সন্ত্রাস, ভাংচুর কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি হতে পারে না। আমরা কখনোই এ ধরনের কাজ বরদাস্ত করব না।’
তিনি পুলিশ বাহিনীকে নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘রাজনীতির নামে এ ধরনের জঘন্য নৃশংস কাজ যারা করবে তাদের কঠোর হস্তে দমন করতে হবে। মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে হবে।’
২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালে বিএনপি-জামায়াতের ধংসাত্মক আন্দোলন কর্মসূচি রুখে দেয়ায় পুলিশ বাহিনীর প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সে সময়ের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর দীর্ঘ ৫০ বছরের অধিক রাজনৈতিক জীবনে সাধারণ মানুষকে গায়ে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে মারার এ রকম রাজনীতি কখনো দেখেননি এবং এ ধরনের রাজনীতি কখনো গ্রহণযোগ্য নয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশে বিএনপি-জামায়াত এসে জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করলেও এটা বাংলাদেশের একার সমস্যা নয়, সারা বিশ্বের একটি সমস্যা এবং এ সমস্যা সমাধানে অনেক উন্নত দেশও হিমশিম খাচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী এ সময় সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ নির্মূলে গণমানুষকে সরকারের কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত করার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, ‘জনগণই কিন্তু ক্ষমতার মূল উৎস। তাই আমরা যদি এসব কাজে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে পারি তাহলে কাজগুলো আরো সহজ হয়ে যায়।’
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here