ভোলায় ভেদুররিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড বাল্য বিয়ে মুক্ত ঘোষণা

0
67

ভোলা প্রতিনিধি: বাল্য বিয়ে মুক্ত সমাজ গড়ার লক্ষ্যে নিয়ে ভোলার সদর উপজেলার ভেদুরিয়ার ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের (চর রমেশ) গ্রামকে  বাল্য বিয়ে মুক্ত ওয়ার্ড হিসাবে  ঘোষণা ও বাল্য বিয়ে বন্ধে শপথ পাঠ করানো হয়। সমন্মিত শিশু বিবাহ প্রতিরোধ কর্মসূচী (আইইসিএম) প্রকল্পের আওতায়  কোস্ট ট্রাস্ট এর বাস্তায়নে ও ইউনিসেফের সহায়তায় শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) বিকালে ব্যাংকের হাট কো-অপারেটিভ হাই স্কুলের মাঠে এ উন্মুক্ত ঘোষনা ও শপথ পাঠ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন- ভোলা সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মোশারেফ হোসেন।
অনুষ্ঠানে বাল্য বিয়ে মুক্ত ওয়ার্ড গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ইউনিয়নের কিশোর-কিশোরী,ইউপি সদস্য, সিবিসিপিসি কমিটির সদস্য, শিক্ষক, রাজনীতিবিদ, ঈমাম, কাজী, এনজি ও কর্মীদের নিয়ে এক গন সমাবেশে মধ্যে দিয়ে  ওয়ার্ডকে বাল্য বিয়ে রাখতে ও শিশুর সর্বত্র স্বার্থ রক্ষার্থে একযোগে সবাই কাজ করতে শপথ বাক্য পাঠ করান ভেদুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: তাজল ইসলাম মাষ্টার।
অনুষ্ঠানে ব্যাংকের হাট কো-অপারেটিভ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো: ইসমাইল হোসেন  এর সভাপত্বিতে  আরো উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন- কোস্ট ট্রাস্ট এর (আইইসিএম) প্রকল্পের প্রকল্প সমন্ময়কারী মিজানুর রহমান, ট্রেনিং এন্ড মনিটরিং অফিসার মো: মনিরুজ্জামান, এডভোকেসি এন্ড  মিডিয়া অফিসার আদিল হাসেন তপু, সিবিসিপিসি কমিটির সভাপতি জোৎ¯œা  বেগম, ইউনিয়ন সমন্ময়কারী সুলতানা বেগম প্রমুখ ।
এসময় কিশোর- কিশোরীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,মিশু, সোহেল, উজ্বল,শশী,সীমা সহ আরো অনেকে।
এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মোশারেফ হোসেন বলেন,     বাল্য বিয়ে আমাদের সমাজের সামাজিক ব্যাধিতে রুপান্তর হয়েছে। এর ফলে প্রতি নিয়ত সমাজে নারী নির্যাতন,যৌতুক এর মতো সামাজিক অবক্ষয় হচ্ছে।
ফলে সমাজের মধ্যে এক ধরনের সমস্য লেগেই রয়েছে। এর অন্যতম কারন হচ্ছে কন্যা শিশুদের বাল্য বিয়ে দেয়া। ফলে তারা অল্প বয়সে স্বামীর ঘরে গিয়ে এক ধরনের পারিবারিক গলহ লেগেই থাকে। শুধু তাই নয় মাতৃও শিশু মিত্যু হারও বেড়ে যায়। বর্তমান সরকারও বাল্য বিয়ে মুক্ত দেশ গড়তে বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।
তাই আমাদের সকলকে শিশু বিবাহকে না বলতে হবে।  শিশু বিবাহ সমাজ, জাতি তথা  দেশকে ক্ষতিগ্রস্ত  করে। শিশু বিবাহ এক ধরনের অপসংস্কৃতি। এই অপসংস্কৃতি থেকে আমাদের  বের হয়ে আসতে হবে। সমাজের   প্রতিটি ব্যক্তি যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে  এসে  শিশু বিবাহ রোধ করার জন্য। কারন শিশু বিবাহ পরিবার দেশ, সমাজ ও জাতির জন্য অভিশাপ। এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তাই সবাইকে ঐক্য বদ্ধভাবে বাল্য বিবাহ রোধ করতে হবে।
ভেদুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাজল ইসলাম মাষ্টার বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই কন্যা শিশুদের বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা করতে আজ আমরা ১ নং ওয়ার্ডকে বাল্য বিয়ে মুক্ত ঘোষনা করছি। পর্যায় ক্রমে আমরা আমাদের ইউনিয়কে এক সময় বাল্য বিয়ে মুক্ত ঘোষনা করবো। এসময় তিনি ক্লাবের কিশোর-কিশোরীদের বসারজন্য ম্যাট( মাদুর) ও খেলার সমগ্রী দেয়ার ঘোষনা দেন।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here