গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বাধা দেয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0
11

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন,বিএনপি যদি জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি পরিহার করে তাহলে তাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বাধা দেওয়া হবে না।
গতকাল দুপুরে রাজধানীর জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে দাবা প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এমন মন্তব্য করেন। ঐতিহ্য সংগ্রাম ও গৌরবের ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকার কোনো দলেরই গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বাধা দেয় না। বিএনপি গণতান্ত্রিক নিয়মকানুন মেনে জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি বন্ধ করলে, সব সহিংতার পথ পরিহার করলে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আর যদি বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি বন্ধ না করে তাহলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। সরকার কারো গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করতে চায় না।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নে শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই। তিনি শুধু দেশের ক্ষুধা-দারিদ্র্য বিমোচন করেননি, দুর্নীতিগ্রস্ত দেশকে অনেক দূরে এগিয়ে নিয়ে গেছেন; করেছেন দুর্নীতিমুক্ত। মার্চের মধ্যে দেশ এগিয়ে যাওয়ার আরো একটি ঘোষণা দেশবাসী শুনতে পাবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর রক্ত যার শরীরে প্রবাহিত হচ্ছে তিনি শুধু বাংলাদেশের নেতা নন, তিনি বিশ্ব নেতা। বিশ্ব আজ অবাক হয়ে প্রশ্ন করে- কীভাবে বাংলাদেশ এত উন্নয়ন করছে? শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস শিশুদের জানতে হবে। কারণ আজকের দিনের শিশুরাই আগামীর বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবে। তাই বিকৃত ইতিহাস জানার হাত থেকে শিশুদের রক্ষা করতে হবে। এই শিশুদের মানসিক বিকাশের জন্য আজ থেকে ৩০ বছর আগে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের যাত্রা শুরু হয়েছিল।
শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের সাংগঠনিক সচিব কে এম শহিদ উল্যার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ম-লীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, পরিষদের উপদেষ্টা সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহবউদ্দিন শামীম, পরিষদের বাড্ডা থানা উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here