admoc
Kal lo

,

admoc
Notice :
«» রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার কার্যকর কিছুই করছে না: প্রধানমন্ত্রী «» উত্তর কোরিয়ায় সিআইএ প্রধান: কিম জং আনের সঙ্গে গোপন বৈঠক «» ঢাকার রাস্তায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের দাপটে যাত্রীরা অসহায় «» ইন্টারনেট আবিষ্কার হয়েছে মহাভারতের যুগে: ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী «» জিডিপিতে শিল্পখাতের অবদান ৪০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে : শিল্পমন্ত্রী «» বিপিও সেক্টরে ১ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে : জয় «» সৌদি আরবে প্রথমবারের মতো নারীদের সাইক্লিং প্রতিযোগিতা «» বিএনপি দেশের স্থিতিশীল অবস্থা মেনে নিতে পারছে না : ওবায়দুল কাদের «» মিয়ানমার প্রথমে ফিরিয়ে নিল ৫ জন «» যৌন নির্যাতন ছিল রোহিঙ্গা বিতাড়নের হাতিয়ার

বিএনপি দেশের স্থিতিশীল অবস্থা মেনে নিতে পারছে না : ওবায়দুল কাদের

Page-1 (6)

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আন্দোলন করার মতো কোনো ইস্যু নেই বলেই দেশের স্থিতিশীল অবস্থাকে বিএনপি মেনে নিতে পারছে না।
গতকাল রোববার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ধর্ম বিষয়ক উপকমিটির সভায় ওবায়দুল  কাদের  বলেন, দেশে বর্তমানে শান্তি আছে, স্থিতিশীলতা আছে। এটা বিএনপি সইতে পারছে না। তাই স্বতঃস্ফূর্ত  এবং  উৎসবমুখর পরিবেশে পহেলা বৈশাখ উদযাপনও তাদের ভালো লাগেনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, কোটা সংস্কার নিয়ে  আন্দোলন গড়ে তোলার রঙ্গিন খোয়াব কর্পূরের মতো বাতাসে মিশে গেছে। তাদের হাতে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই। তাদের মাঠে নামার কোনো অবস্থাও নেই। বৈশাখেও বিএনপি নোংরা রাজনীতিকে কাজে লাগিয়েছে অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, পহেলা বৈশাখে সেলিব্রেশন, কালারফুল লাখ লাখ, কোটি কোটি নর-নারীর উপস্থিতি এবং গ্রাম পর্যায়ে পহেলা বৈশাখ উদযাপন হয়েছে। এ দিনে প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য রেখেছেন। তিনি বিএনপিকে কটাক্ষ করে কোনো বক্তব্য রাখেননি, কোনো রাজনৈতিক বক্তব্য দেননি। তিনি  আরো বলেন, আমি নিজে বাহাদুর শাহ পার্কে যে বক্তব্য দিয়েছি তাতে বিএনপিকে আক্রমণ করে কোনো বক্তব্য রাখিনি। অথচ পহেলা বৈশাখের দিনেও বিএনপি নোংরা রাজনীতিতে মেতে উঠেছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। এদিকে, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রাম মাধবের আমন্ত্রণে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের  নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের ২০ সদস্যের একটি তিনিধিদল  এেিলর ২২ তারিখ সকালে ঢাকা ছাড়বে। ২৩ তারিখ দুদেশের ক্ষমতাসীন দলের মধ্যে ‘পার্টি টু পার্টি’ আলোচনা হবে। আওয়ামীলীগের তিনিধিদল  ২৪ তারিখ ঢাকায় ফিরবে। আওয়ামী লীগের  ২০ সদস্যের তিনিধিদলে থাকবেন দলের সভাপতিম-লীর সদস্য পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহামদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, এ কে এম এনামুল হক শামীম, মেজবাহ উদ্দিন সিরাজ, মহিবুল হাসান চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, চার ও কাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ, বিজ্ঞান ও যুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, সদস্য গোলাম কবির রাব্বানী এবং এস এম কামাল হোসেন।

Share Button
Share on Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী