ভারতের আশীষ বিদ্যার্থী ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে আসছেন তো?

0
553

বিনোদন প্রতিবেদক : যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণের পাশাপাশি ঢাকাই সিনেমায় অহরহ বিদেশি শিল্পী ও কলাকুশলী নেয়া হচ্ছে। নিয়ম অনুযায়ী এসব বিদেশি শিল্পী ও কলাকুশলীরা ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে শুটিং করার কথা। গত কয়েক বছর ধরে এসব নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই বাংলাদেশে বিদেশি শিল্পী ও কলাকুশলীরা শুটিং করে যাচ্ছেন। টুরিস্ট ভিসা নিয়ে অনেক শিল্পীই নীরবে শুটিং করে নিজ দেশে চলে গেছেন।
গত বছর থেকে এই বিষয়টির ঘোর প্রতিবাদ করে আসছিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৮টি সংগঠন। এর পরই কলকাতার শিল্পী বনিকে নিয়ে ‘মনে রেখ’ সিনেমার শুটিং করায় সিনেমাটির শুটিং বন্ধ করে দেয়া হয়। এছাড়াও কয়েকজন শিল্পীসহ কলাকুশলী একই কারণে শুটিং করতে পারেননি। তারপরই নড়েচড়ে বসেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো। ‘মনে রেখো’ সিনেমাটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। ‘ক্যাপ্টেন খান’ সিনেমার শুটিং করতে এবার ঢাকায় আসছেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেতা আশীষ বিদ্যার্থী। এ সিনেমাটিও পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। ভারতীয় শিল্পী আশীষ বিদ্যার্থী ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে শুটিং করতে আসছেন তো? চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই এমন প্রশ্ন তুলেছেন।বিষয়টি জানতে চাইলে পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আশীষ বিদ্যার্থী ওয়ার্ক পারমিট নিয়েই বাংলাদেশে আসছেন। সকল নিয়ম কানুন মেনেই তিনি কাজ করবেন।’এদিকে প্রযোজক সেলিম খান বলেন, ‘ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে শিল্পী আসলে আমার জন্যও ভালো আমিও চাই শিল্পীরা ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে আসুক এবং কাজ করুক।’‘ক্যাপ্টেন খান’ সিনেমায় নায়িকা বুবলীর বাবার চরিত্রে অভিনয় করবেন আশীষ বিদ্যার্থী। আগামী ২৯ মে ঢাকায় এসে শুটিংয়ে অংশ নিবেন বলেও জানান নির্মাতা সুমন। আশীষ বিদ্যার্থী ২০১৫ সালে ‘অগ্নি-টু’ সিনেমায় অভিনয় করেন। এর পর যৌথ প্রযোজনাসহ বেশ কয়েকটি বাংলাদেশের সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। শাপলা মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘ক্যাপ্টেন খান’ সিনেমায় অভিনয় করছেন শাকিব খান, সম্রাট, শবনম বুবলী, কলকাতার পায়েল মুখার্জি, মিশা সওদাগর, অমিত হাসান, ডন, শিবা শানুসহ অনেকে।

Share on Facebook