এ বাজেট নির্বাচনী বাজেট নয় : সেতুমন্ত্রী

0
81

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবারের বাজেট আওয়ামী লীগের কোনো নির্বাচনী বাজেট নয়। এটা একটা জনবান্ধব বাজেট হিসেবে প্রস্তাব করা হয়েছে। এনিয়ে আলোচন সমলোচনা থাকবে বলে মন্তব্য করছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। গতকাল শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বিকল্প ফেরিঘাট নির্মাণের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ মন্তব্য করেন। সেতুমন্ত্রী বলেন, বড় বাজেট বড় চ্যালেঞ্জ। বড় চ্যালেঞ্জ অ?তিক্রম করার সৎ সাহস একমাত্র শেখ হা?সিনার সরকারের রয়েছে। দেশের উন্নয়নের স্বার্থে জনগণের জন্য বাজেট পেশ করা হয়েছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, দেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের সমস্যা বিবেচনা করেই এ বাজেট পেশ করা হয়েছে। তবে বাজেট এখনও পাশ হয়নি। আলোচনার পর প্রয়োজনীয় সংশোধনের পর বাজেট পাশ হবে। সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল শুক্রবার জেলার মেঘনা লঞ্চঘাট পরিদর্শনকালে ২০১৮-’১৯ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। এ সময় সড়ক পরিবহন ও সেতু বিভাগের সংশ্লিষ্ট উর্ধ¦তন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০১৮-’১৯ অর্থ বছরের যে বাজেট গত বৃহস্পতিবার সংসদে পেশ করা হয়েছে, তা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হবে। আলোচনার পর প্রয়োজনীয় সংশোধনীর পর বাজেট পাশ হবে। তিনি বলেন, এ বাজেটে কয়েক লাখ মানুষকে সামাজিক নিরাপত্তা বলয়ের আওতায় আনা হয়েছে। এ বাজেটে গরীব মানুষের স্বার্থকে সবচেয়ে বড় করে দেখা হয়েছে। তিনি বলেন, বাজেট নিয়ে বিএনপি নেতাদের বেপরোয়া মন্তব্য দেখে বোঝা যাচ্ছে বাজেট ভাল হয়েছে। আসন্ন ঈদ যাত্রায় মানুষের ভোগান্তি হবে না আশা প্রকাশ করে সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, সড়ক-মহাসড়ক বর্তমানে যে অবস্থায় রয়েছে তাতে যানজট হবে না। তিনি বলেন, টোল প্লাজায় ভাংতি টাকার জন্য অনেক সময় যানজট তৈরি হয়। সেজন্য প্রয়োজনীয় ভাংতি টাকা রাখার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে। ইতোমধ্যে এর সুফল পাওয়া যাচ্ছে। সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আপতকালীন সমস্যা নিরসনে মেঘনা ও গোমতি নদীতে ফেরি সার্ভিস চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী ১২ জুন থেকে মেঘনা নদীতে ফেরি সার্ভিস চালু করা হবে। তিনি বলেন, তবে গোমতি নদীতে ড্রেজিং ছাড়া ফেরি সার্ভিস চালু করা সম্ভব হবে না। আগামী ঈদ-উল-আযাহার আগে এ নদীতে ফেরি সার্ভিস চালু করা হবে। এতে উভয় স্থানে যানজট সমস্যা নিরসন হবে বলে আশা করা যায়। কাদের বলেন, আগামী ডিসেম্বরের আগেই মেঘনা ও গোমতি সেতুর ফোরলেন সেতু প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। এ সেতুগুলো চালু হলে তিন ঘন্টার মধ্যে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যাওয়া যাবে।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here