বড় ধাক্কা আর্জেন্টিনা শিবিরে

0
113

নিউজ ডেস্ক : লিগামেন্টে চোট পেয়ে দল থেকে ছিটকে গেলেন ম্যানুয়েল লানসিনি। বিশ্বকাপের ছয় দিন আগে আর্জেন্টিনা শিবিরে বিপর্যয়। গত শুক্রবার বার্সেলোনায় অনুশীলন করতে গিয়ে হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায় এ মিডফিল্ডারের। আর্জেন্টিনা শিবিরের খবর, অস্ত্রোপচার করিয়ে মাঠে ফিরতে অন্তত ছয় মাস সময় লাগবে তাঁর। যার অর্থ, বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন শেষ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের হয়ে খেলা লানসিনির।
আর্জেন্টিনার হয়ে মাত্র চারটি ম্যাচ খেললেও বিশ্বকাপে লানসিনিকে প্রথম একাদশে রাখার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন কোচ সাম্পাওলি। কারণ, আক্রমণের পাশাপাশি রক্ষণে নেমে এসে দলকে সাহায্য করেন তিনি। হাইতির বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচেও লানসিনিকে প্রথম দলে  রেখেছিলেন সাম্পাওলি। এই মুহূর্তে লানসিনির বিকল্প খুঁজে বার করাই সব চেয়ে বড় পরীক্ষা তাঁর। আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যমের দাবি, লানসিনির অভাব পূরণ করতে সাম্পাওলির ভাবনায় রয়েছেন এনসো পেরেস, পাবালো পেরেসের নাম। দু-এক দিনের মধ্যেই তিনি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। একঘেয়েমি কাটাতে প্রথমে ‘ফুট টেনিস’ খেলেন ফুটবলাররা।  অর্থাৎ, খেলা হবে টেনিসের নিয়মে। কিন্তু টেনিস র‌্যাকেটের পরিবর্তে খেলতে হবে পা দিয়ে। মিনিট পনেরো ফুট টেনিসের খেলার পর অনুশীলন শুরু হতেই বিপর্যয়। চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন লানসিনি। ২০১৬ অলিম্পিক্সের আগেও হাঁটুতে চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছিলেন লানসিনি। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হল বিশ্বকাপ শুরু ছয় দিন আগে। আর্জেন্টিনা শিবিরের বিপর্যয়ে শুধু লানসিনি নন, মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত বাকি ফুটবলাররাও। হতাশ ম্যানুয়েল ওতামেন্দি টুইটারে লিখেছেন, ‘‘আমি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। তবে ফুটবল তোমাকে ফের সুযোগ দেবে লানসিনি।’’ হাভিয়ার মাসচেরানো লিখেছেন, ‘‘আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরতে হবে তোমাকে।’’ ইনস্টাগ্রামে লানসিনির সঙ্গে ছবি পোস্ট করে গঞ্জালো হিগুয়াইন লিখেছেন, ‘‘আমি নিশ্চিত, তুমি আগের চেয়েও শক্তিশালী হয়ে ফিরবে।’’ পাওলো দিবালা লিখেছেন, ‘‘লানসিনি আমরা সবাই তোমার সঙ্গে আছি।’’১৯৭৮ সালে প্রথম বার আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক মারিয়ো কেম্পেসও হতাশ লানসিনি চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ায়। আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘‘এক জন ফুটবলারের কাছে বিশ্বকাপে খেলার চেয়ে বড় স্বপ্ন কিছু হয় না। অথচ, সেই স্বপ্ন পূরণের মাত্র কয়েক দিন আগে চোট পেয়ে দল থেকে ছিটকে গেল মানসিনি। দুর্ভাগ্যজনক ছাড় আর কিছু নয় এটা।’’

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here