২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার যুক্তিতর্ক শেষ হবে চলতি সপ্তাহে

0
11

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট ভয়াবহ বর্বরোচিত ও নৃশংস গ্রেনেড হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত দুই মামলার বিচারকার্য শেষ পর্যায়ে। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসলি সৈয়দ রেজাউর রহমান  গতকাল শনিবার বলেন, চলতি সপ্তাহে ১৭ ও ১৮ সেপ্টেম্বর ২১ আগষ্ট মামলার তারিখ ধার্য রয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষে ১৭ সেপ্টেম্বর যুক্তিতর্ক সমাপ্ত হবে বলে আশা করছি। এরপর আসামীপক্ষ আইনি পয়েন্টে সামগ্রিক ভাবে বক্তব্য পেশের সূযোগ পাবে। তিনি বলেন, ফ্যাক্টেস্ এর আলোকে রাষ্ট্রপক্ষ ইতোপূর্বে টানা ২৫ কার্যদিবস যুক্তিতর্ক পেশ করেছে। এরপর আসামিপক্ষ টানা ৮৯ কার্যদিবস যুক্তিতর্ক পেশ করেছে। গত ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রপক্ষ টানা তিন কার্যদিবস আইনি পয়েণ্টে যুক্তিতর্ক পেশ করেছে। আশাকরছি পরবর্তী ধার্য তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপক্ষ যুক্তিতর্ক পেশ শেষ করতে পারবে। তিনি বলেন, ইতোপূর্বে আসামীপক্ষ ফ্যাক্টস্ পাশাপাশি আইনি পয়েণ্টেও যুক্তিতর্ক পেশ করেছে। রাষ্ট্রপক্ষে পেশ করা আইনি পয়েণ্টের আলোকে আসামীপক্ষও আইনি পয়েন্টে জবাব দেয়ার সূযোগ পাবে। প্রধান কৌসঁলী বলেন, মামলায় আসামীপক্ষ আইন অনুযায়ী সকল সুবিধা ভোগ করেছেন। দীর্ঘ ১২ বছর মামলার বিচারকার্য আমরা পরিচালনা করেছি। এখন মামলার বিচার একেবারেই শেষ পর্যায়ে। মামলা বিচারিক আদালতে অচিরেই রায় ও নিস্পত্তি হবে বলে আশা প্রকাশ করেন সৈয়দ রেজাউর রহমান। ২১ আগষ্ট গ্রেনে হামলার ষড়যন্ত্র, অপরাধ সংগঠন, অপরাধের আলামত ধ্বংস ও অপরাধীদের বাচাঁনোর চেষ্টাসহ আসামীদের বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ সন্দেহাতীতভাবে প্রমান করতে পেরেছে বলে দাবী করেন রাষ্ট্রপক্ষ। রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে স্থাপিত ঢাকার ১ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালতে একুশে আগষ্টের ওই ঘটনায় আনা পৃথক মামলায় একই সঙ্গে বিচার চলছে। ১১৭ কার্যদিবস শেষে মামলাটি এই পর্যায়ে এসেছে। এর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ নিয়েছে ২৮ কার্যদিবস আর আসামিপক্ষ নিয়েছে ৮৯ কার্যদিবস। ২১ আগষ্টের ঘটনায় পৃথক মামলায় মোট আসামীর সংখ্যা ৫২ জন। এর মধ্যে ৩ জন আসামীর অন্য মামলায় মৃত্যুদন্ড কার্যকর হওয়ায় তাদেরকে মামলা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এখন ৪৯ আসামীর বিচার চলছে। এর মধ্যে এখনো ১৮ জন পলাতক। মামলার আসামী বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, বিএনপি নেতা সাবেক উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টু, সেনা কর্মকর্তা রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরীসহ ২৩ জন কারাগারে রয়েছেন। এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ২২৫ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য দেয়। আসামীপক্ষে সাক্ষিদের জেরা করেছে। গত বছরের ৩০ মে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আব্দুল কাহার আকন্দের জেরা শেষের মধ্য দিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here