মোরাতা-যুদ্ধে বার্সেলোনাকে হারিয়ে দিচ্ছে অ্যাতলেতিকো

0
407

ক্রীড়া ডেস্ক : মুনির আল হাদ্দাদি বার্সেলোনা ছেড়ে নাম লিখিয়েছেন সেভিয়ায়। তার শূন্যতা পূরণে জরুরী ভিত্তিতে একজন ব্যাকআপ স্ট্রাইকার খুঁজছে বার্সেলোনা। প্রাথমিকভাপবে যে ৪ জনকে বাছাই করেছিল, তার মধ্যে অন্যতম আলভারো মোরাতা। চেলসির এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডের সঙ্গে আলোচনা শুরু করে দিয়েছিল বার্সেলোনা। কিন্তু মোরাতাকে দলে টানা দৌড়ে বুঝি বার্সেলোনাকে হারই মানতে হচ্ছে। গণমাধ্যমের খবর, বার্সেলোনা নয়, ২৬ বছর বয়সী মোরাতা চেলসি ছেড়ে যোগ দিতে যাচ্ছেন অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদে। ইংল্যান্ড ও স্পেনের গণমাধ্যমের খবর, মোরাতার সঙ্গে চুক্তির বিষয়ে কথাবার্তা পাকা করে ফেলেছে অ্যাতলেতিকো। আগামী মঙ্গলবারই সেরে ফেলা হচ্ছে চুক্তি। মানে মোরাতা ফিরছেন নিজের সাবেক ক্লাবে। এই অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের যুব একাডেমীতেই মোরাতার ফুটবলের হাতেখড়ির শুরু। ফুটবলের দীক্ষা নিতে অ্যাতলেতিকোর একাডেমীতে ভর্তি হন ২০০৫ সালে। অ্যাতলেতিকোর সঙ্গে তার সম্পর্কটা তাই নাড়ির। সেই নাড়ির টানেই নাকি বার্সেলোনার পরিবর্তে অ্যাতলেতিকোকেই বেছে নিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক ফরোয়ার্ড। অ্যাতলেতিকোর যুব একাডেমীতে দুই বছর কাটিয়ে ২০০৭ সালে চলে যান গেটাফেতে। গেটাফেতে এক বছর পার করে ২০০৮ সালে যোগ দেন রিয়ালের যুব একাডেমীতে। এরপর রিয়ালের বি দল হয়ে ২০১০ সালে রিয়ালের মূল দলের হয়ে অভিষেক। শুরুতে তার মধ্যে অনেকেই দেখছিলেন আগামীর বড় তারকার ছায়া। কিন্তু মোরাতা শুরুর সেই আভাসটা বাস্তবে রূপ দিতে ব্যর্থ। প্রতিভা থাকলেও নিজেকে ঠিক মেলে ধরতে পারছেন না। প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারাতেই ২০১৪ সালে রিয়াল তাকে বিক্রি করে দেয় জুভেন্টাসের কাছে। তবে ২০১৬ সালে জুভেন্টাস থেকে আবার তাকে ফিরিয়েও আনে রিয়াল।
কিন্তু পরের বছরই চড়া দামে তাকে বিক্রি করে দেয় চেলসির কাছে। বড় আশা করেই তাকে ৭০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনেছিল চেলসি।

Share on Facebook