নরসিংদীতে স্কুলছাত্র, সিরাজগঞ্জে কলেজছাত্রসহ সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ জন নিহত

0
91

কালবেলা ডেস্ক : রাজধানীসহ ৮ জেলায় সড়ক ও রেলপথে দুর্ঘটনায় ৮ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে শুধু সড়কেই ঝরেছে শিশু, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ ৬ প্রাণ। এছাড়া দুই জেলায় ট্রেনের ধাক্কায় ও ছাদ থেকে পড়ে দুজন নিহত হয়েছেন। গতকাল ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে। রাজধানীর মিরপুরে তেলবাহী লরির চাপায় আব্দুর রাজ্জাক (৫২) নামে এক মাদরাসা শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল ভোর সাড়ে ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, ভোরে মিরপুরের কল্যাণপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা গেছে, একটি তেলের লরির ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় রাজ্জাকের। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীতে কাভার্ড ভ্যান চাপায় ৮ম শ্রেনীর ছাত্র রাব্বি মিয়া মারা যায়। এতে আহত হয় আরো ১ জন। আজ (বৃহস্পতিবার) সকালের দিকে জেলার বেলাব উপজেলার বারৈচা বাসস্ট্যান্ডের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রাব্বি মিয়া স্থানীয় হোসেন নগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র। সে হোসেন নগর গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে।বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফখরুদ্দিন ভূইঁয়া জানান, খেলাধুলা করতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রাব্বি মিয়া ও তার এক সহপাঠী বাইসাইকেল যোগে বারৈচা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক পার হচ্ছিলো। এসময় ভৈরব থেকে ঢাকাগামী একটি কাভার্ডভ্যান তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই রাব্বির মৃত্যু ঘটে। আহতাবস্থায় তার সহপাঠীকে স্থানীয় হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ঘাতক কাভার্ড ভ্যানটি আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ।ভৈরব হাইওয়ে থানার ওসি বলেন, চালকসহ কাভার্ডভ্যানটিকে আটক করা হয়েছে। পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।নাটোরের ডাল সড়ক এলাকায় মাটিবাহী ট্রাক্টরের চাপায় রফিক নামে এক অটোরিকশা চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ইয়ামিন ও জাহাঙ্গীর নামে দুই যাত্রী । গতকাল বেলা ১১টার দিকে নাটোর সদর উপজেলার ডাল সড়ক এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। খুলনার রূপসা উপজেলার আনন্দনগর গ্রামে ইটবোঝাই ট্রলির চাপায় প্রথম শ্রেণির ছাত্রী আখি মনির (৭) মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে স্কুল থেকে বের হয়ে পাশের দোকানে খাবার কিনতে যাওয়ার সময় ট্রলিচাপায় মারা যায় সে। এ ঘটনায় পুলিশ ট্রলিচালক মিলন শেখকে গ্রেফতার করেছে।ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় ট্রাক্টর উল্টে কাদির মিয়া (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল ভোরে উপজেলার বেড়তলা এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কালা মিয়া (৩৫) ও ইমাম হোসেন (২৬) নামে আরও দুইজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে কাভার্ডভ্যানের চাপায় হৃদয় (১৭) নামে এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন আরও দুই পথচারি। সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাট বাজারে রাস্তা পার হওয়ার সময় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় স্থানীয় ধুকুরিয়া আব্দুল হামিদ বিএম  কৃষি কলেজের এইচএসসসি পরিক্ষার্থী হৃদয় শেখ (১৮) নিহত হয়েছেন। দূর্ঘটনায় কলেজের আরও দুই শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা কার্গো ভ্যানটিতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং সড়ক অবরোধ করে। বৃহস্পতিবার  সকাল সাড়ে ৭টায় সিরাজগঞ্জ-নলকা নির্মাণাধীন চারলেন মহাসড়কে কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হৃদয় শেখ বাজার ভদ্রঘাট গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে ও ধুকুরিয়া আব্দুল হামিদ বিএম কৃষি কলেজের এইসএসচি পরীক্ষার্থী। এলাকাবাসী জানায়, সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় নলকা থেকে সিরাজগঞ্জ গামী এসিআই ফিড মিলের একটি কার্ভাড ভ্যান তিন ছাত্রকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই হৃদয় মারা যায়। আহত হয় অপর দুই ছাত্র। দুর্ঘটনার সাথে সাথে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী কার্গোটিকে আটক করে আগুন ধরিয়ে দিয়ে সড়ক অবরোধ করে। সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সহকারি পরিচালক মো. আব্দুল হামিদ জানান, কার্গোচাপায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হওয়ায় এলাকাবাসী কার্গোটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্তনে আনে। পুলিশ দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে সকাল ৯টার দিকে আবরোধ তুলে নেয় এলাকাবাসী। আহতদের সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় গতকাল ভোরে ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত একজন ও গাজীপুরের কালীগঞ্জে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে অজ্ঞাত (২৬) এক যুবক নিহত হয়েছেন। কালীগঞ্জ পৌরসভার মূলগাঁও মাদরাসা সংলগ্ন রেললাইনে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করেছে নরসিংদী রেলওয়ে ফাঁড়ি পুলিশ।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here