রাজধানী ছেড়ে শিকড়ে ফিরতে শুরু

0
156

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে রাজধানী ছেড়ে শিকড়ে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। ঈদুল ফিতরের ছুটি কাটাতে বৃহস্পতিবার অনেকেই পরিবার নিয়ে রাজধানী ছেড়েছেন। এই যাত্রা ছিল মূলত বাস, লঞ্চে ও ট্রেনে। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকেই সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা গেছে, দেশের বিভিন্ন স্থানে যাওয়া যাত্রীদের ভিড়। তীব্র গরমকে উপেক্ষা করে যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করেন। কখন আসবে নির্দিষ্ট গন্তব্যের বাস। বাস টার্মিনালের কাউন্টারের কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার থেকেই  যাত্রীদের চাপ শুরু হয়েছে।  সেই চাপ গতকাল শুক্রবার আরো বেড়ে যায়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চট্টগ্রাম, ফেনীসহ অধিকাংশ জেলার টিকিট অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে। যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, কাউন্টারের লোকজনকে ডাবল টাকা দিলেই কাক্সিক্ষত টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। রয়েল পরিবহনের এক যাত্রী সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘বেলা সাড়ে ১১টায় বাস ছাড়ার কথা, কিন্তু গাড়ি এসেছে পৌনে ১টায়। কুমিল্লা যাব।  তীব্র গরমে ক্লান্ত। ছোট বাচ্চা নিয়ে যেতে কষ্ট হবে। আর রাস্তায় যানজট হলে আরো কষ্ট । ঢাকা-কুমিল্লা রুটের রয়েল পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার তৌফিক জানান, গাড়ি স্বাভাবিকভাবেই চলছে। আগে থেকে যেসব যাত্রী টিকিট বুকিং দিয়েছেন তারাই শুধু যাচ্ছেন। এদিকে, সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে সৌদিয়া, সাকুরা রয়েল, স্টার লাইন, তিশা, দোয়েল, ঈগল, হানিফ, সোহাগ, শ্যামলী, একে ট্রাভেলস, এস আলমসহ বিভিন্ন পরিবহন কাউন্টারের সামনে মানুষের ভিড় দেখা গেছে। একজন যাত্রী জানান, মাদারীপুরের যাওয়ার জন্য সৌদায়া পরিবহনের ৩১ মের টিকিট অতিরিক্ত টাকা দিয়ে সংগ্রহ করেছেন। তিনি বলেন, ‘দুপুর ১২টায় বাস ছাড়ার কথা থাকলেও ১টায় বাস এসেছে।  সোয়া ১টায় গাড়ি ছেড়ে গেছে।  মনে হচ্ছে পথে আরো দুর্ভোগে পড়তে হবে। সৌদিয়া পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার বাশার মিয়া বলেন, ‘ফেরি পারাপারে দেরি হওয়ায় শিডিউল অনুযায়ী ২০-২৫ মিনিট দেরি হচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ে গাড়ি পৌঁছে যাবে। ’

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here