এবার দু’ হাজার স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা এমপিওভুক্ত হচ্ছে

0
28

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি অর্থ বছরে আরো দু’হাজার বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির চ‚ড়ান্ত তালিকা করা হয়েছে। প্রায় পনের হাজার শিক্ষক, কর্মচারি এমপিওভুক্ত হয়ে নতুন বেতন কাঠামোতে বেতনসহ আর্থিক সুযোগ সুবিধা পাবেন। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সবগুলোর শিক্ষার মান, গত কয়েক বছরের ফলাফলসহ প্রাসঙ্গিক অনেক বিষয়ই এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে। এমপিওভুক্তির পিছনে প্রধানত্ব রাজনৈতিক বিবেচনা, মন্ত্রী, এমপিদের তদবির কাজ করেছে। এমপিওভুক্তির জন্য দশ হাজারের বেশি আবেদন পড়েছিল। এরমধ্যে মাদ্রাসা রয়েছে বার’শ। বাকিগুলো স্কুল ও কলেজ। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দুই হাজার এমপিওভুক্ত করার জন্য চ‚ড়ান্ত করা হয়েছে। এতে সরকারের ব্যয় হবে এক হাজার সাতশ পঞ্চাশ কোটি টাকা। এমপিওভুক্তির জন্য আবেদনের সময় অতিক্রান্ত হওয়ার পরও শত শত আবেদন পড়েছে। এমপি ও মন্ত্রিরা এসব আবেদন পাঠাচ্ছেন। নিজেদের নির্বাচনী এলাকা ও জেলাধীন এসব প্রতিষ্ঠান অন্তর্ভূক্ত করার জন্য উচ্চ পর্যায়ে জোর তদবির চালাচ্ছেন।
জানা যায়, এমপিওভুক্তির জন্য যেসব অপরিহার্য শর্ত রয়েছে এমপিওভুক্তির জন্য চ‚ড়ান্তভাবে বাছাইকৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের অধিকাংশই সেইসব শর্ত পূরণ করতে পারেনি। শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা, প্রশিক্ষণ, অভিজ্ঞতা, শিক্ষার মান, গত পাঁচ বছরে পরীক্ষার ফলাফল, শিক্ষার্থীর সংখ্যা, উপস্থিতি শিক্ষার পরিবেশসহ আরো কিছু বিষয়ে এইসব প্রতিষ্ঠান অনেক পিছিয়ে আছে। জেলা শিক্ষা অফিসার ছাড়া জেলা, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের মাধ্যমে সরেজমিনে যাচাই করা হয়। এতে প্রতিষ্ঠানগুলোর দুর্বলতাগুলো প্রকটভাবে ধরা পড়ে। মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর থেকেও ভালভাবে যাচাই বাছাই করা হয়। তারপরও প্রধানত রাজনৈতিক বিবেচনায় এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। এর আগেও একইভাবে এমপিওভুক্ত করা হয়। এতে করে দেখা গেছে প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার মান উন্নত হয়নি। পরীক্ষার ফলাফলও হতাশাব্যঞ্জক।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here