গমের মজুদ সংকটে উদ্বিগ্ন সরকার

0
28

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারের শস্য মজুদ ভান্ডারে পর্যাপ্ত চাল থাকলেও গম নেই প্রায়। দেশে এখন খাদ্যশস্যের মজুদ রয়েছে প্রায় পনের লাখ মে.টন। এরমধ্যে গমের পরিমান মাত্র ১ লাখ টনের কিছু বেশি। অভ্যন্তরীণ উৎপাদন সংকটসহ মজুদ স্বল্পতার কারণে গম ময়দা, আটার বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছেনা সরকার। এক বেসরকারি আমদানীকারক ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রণে। ভোক্তা সাধারণ উচ্চমূল্যে আটা, ময়দা কিনতে বাধ্য হচ্ছেন।
খাদ্য অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, গমের উৎপাদন ও মজুদ স্বল্পতার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার জরুরি ভিত্তিতে রাশিয়া থেকে দুই লাখ মে.টন গম সংগ্রহের চেষ্টা করছে। অধিদপ্তরের অনুরোধে রাশিয়া থেকে একটি প্রতিনিধি দল গতমাসে ঢাকা এসে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন। সরকারের দিক থেকে সরকারি পর্যায়ে (জি-টু-জি) দুই লাখ মে.টন গম সরবরাহের প্রস্তাব করা হয়। দাম নির্ধারিত হবে আন্তর্জাতিক বাজারদর অনুযায়ী। রাশিয়া দুই লাখ টন গম সরবরাহে অপারগতা প্রকাশ করে। রাশিয়া জেএসসি প্রডিনটরগ নামক একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানকে বাংলাদেশে গম রফতানির জন্য মনোনীত করে। এই প্রতিষ্ঠান থেকে জানান হয় যে, এক লাখ মে.টন গমও সরবরাহ করা সম্ভব নাও হতে পারে। তবে তারা ৫০ হাজার মে.টন গম স্বল্প সময়ের মধ্যেই সরবরাহের নিশ্চয়তা দেয়। দু’দেশের মধ্যে সম্পাদিত সম্মত কার্যবিবরণীতে ১ লাখ মে.টন গম সরবরাহের কথাই বলা হয়েছে। রাশিয়া থেকে নিশ্চয়তা না পাওয়ায় অবশিষ্ট গম অন্য উৎস থেকে সংগ্রহের চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনও নিয়ে রাখা হয়েছে।, যুক্তরাষ্ট্র, কাজাখাস্তান, ইউক্রেন, থেকে দেড় দুই লাখ মে.টন গম সংগ্রহের চেষ্টা করা হচ্ছে।
সরকারের হাতে গমের অপর্যাপ্ত মজুদ থাকায় বাজারে চাহিদা মাফিকগম ছাড়া সম্ভব হচ্ছেনা। আটা, ময়দার দামও সরকার নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছেনা। বেসরকারি খাতে আমদানী করা নিম্নমানের গম উচ্চমুল্যে আটা, ময়দা প্যাকেটজাত করে বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে। সামাজিক নিরাপত্তা বেস্টনীর আওতায় জরুরি সরকারি বিতরণ ব্যবস্থা সচল রাখতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে।
জানা যায়, রাশিয়া থেকে প্রতিটন গমের দাম পড়বে ২৬৭ দশমিক ৩০ মার্কিন ডলার। ১ লাখ মে.টন গম আমদানীতে ব্যয় হবে ২ কোটি ৬৭ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার, টাকার অঙ্কে যার পরিমান দাঁড়াবে ২শ ৩৫ কোটি টাকা। আগামী মাসের মধ্যেই রাশিয়ার গম চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌঁছাবে বলে জানা যায়।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here