জিএম কাদের চেয়ারম্যান, রওশন বিরোধীদলীয় নেতা

0
17

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় পার্টির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের আপাতত একটা সমাধান হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বলেছেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের ‘নির্দেশনা’ অনুযায়ী তার ভাই জিএম কাদেরই দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। আর সংসদে বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্বে থাকবেন এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ।  গতকাল দলের বনানীর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বলেন, দলের কয়েকজন সংসদ সদস্য ও প্রেসিডিয়াম মেম্বার নিয়ে তারা একটি কমিটি গঠন করেছিলেন। এ কমিটি গঠনে জিএম কাদের ও রওশন এরশাদ দুজনেরই সম্মতি ছিল। কমিটি শনিবার রাতে একটি বৈঠক করে। দীর্ঘ সময় ধরে চলা ওই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করবেন রওশন এরশাদ। এছাড়া  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবে জিএম কাদের দায়িত্ব পালন করবেন।
রাঙ্গা বলেন, ‘জাপার দুটি অংশই আমাকে মহাসচিব হিসেবে চেয়েছিল। আর দলের সংকটে আমি সেই দায়িত্ব পালনের চেষ্ট করেছি। আশা করছি দলের ভাঙন রক্ষার পাশাপাশি সবধরনের সমস্যাও মিটে যাবে। দল যে ভাঙনের দিকে যাচ্ছিল তা শেষ পর্যন্ত রক্ষা পেয়েছে এটা বলতে পারি।
জাপা মহাসচিব বলেন, বৈঠকে আরেকটি বিষয় এসেছিল, রংপুরের উপ নির্বাচন নিয়ে। সেখানে সাদ এরশাদের পক্ষে প্রস্তাব রাখা হয়েছিল, বিপক্ষেও কথা হয়েছে। সিদ্ধান্ত হয়েছে, মহাসচিব ও চেয়ারম্যান বসে রংপুরের বিষয়টি বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন- প্রার্থী কে হবে। আজ বা কালকের মধ্যে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেব। তখন জানতে পারবেন।
সাবেক প্রেসিডেন্ট এইচ এম এরশাদ প্রতিষ্ঠিত জাতীয় পার্টিতে জি এম কাদের ও এরশাদ-পতœী রওশনের নেতৃত্বে দুটি বলয় দীর্ঘদিন ধরে সক্রিয়। এরশাদ জীবিত থাকা অবস্থায়ই কোন্দল প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে একাধিকবার। গত ১৪ জুলাই মারা যাওয়ার আগেই ছোট ভাই কাদেরকে দলের চেয়ারম্যান মনোনয়ন করেন। তখনই এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন রওশনপন্থীরা। এরশাদ মারা যাওয়ার পর সভাপতিমÐলীর সভায় কাদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এরপর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কাদের জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার জন্য স্পিকারকে চিঠি দেন। এতে ক্ষুব্ধ রওশনপন্থীরা গত বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন ডেকে এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন। এরপর রওশন পাল্টা চিঠি দেন স্পিকারকে। ওই দিন রওশন এরশাদের গুলশানের বাসায় সংবাদ সম্মেলন করেন জাতীয় পার্টির সভাপতিমÐলীর সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। তিনি দলের চেয়ারম্যান হিসেবে রওশন এরশাদের নাম ঘোষণা করেন। এই সংবাদ সম্মেলনের দুই ঘণ্টার মধ্যে জি এম কাদের আরেক সংবাদ সম্মেলন ডেকে চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার যৌক্তিকতা ব্যাখ্যা করেন। দলটির এই টানাপড়েনের মধ্যে গতকালই রওশন সিদ্ধান্ত নেন, রোববার জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতার কক্ষে দলীয় সাংসদদের নিয়ে সভা করবেন। এ খবর জানাজানি হওয়ার পর গতকাল দুপুর ১২টায় দলের বনানীর কার্যালয়ে সংসদীয় দলের পাল্টা সভা ডাকেন জি এম কাদের। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দুই পক্ষে সমঝোতার উদ্যোগ নেয়া হয়।
উল্ল্যেখ্য গত শনিবার রাতে বারিধারার কসমোপলিটন ক্লাবে রওশন ও জিএম কাদেরপন্থি নেতাদের বৈঠকে যে সমঝোতা হয়। গতকাল দলের বনানীর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ।
তিনি বলেন, প্রয়াত নেতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের ‘নির্দেশনা’ অনুযায়ী তার ভাই জিএম কাদেরই দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। আর সংসদে বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্বে থাকবেন এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ। রাঙ্গাঁ বলেন, প্রথমে আমাদের যে বিষয়টি ছিল, সেটি হল চেয়ারম্যানের দায়িত্ব কে পালন করবেন। এটা নিয়ে একটি বিতর্ক ছিল। সেটি কাল সমাধান হয়ে গেছে। বলেন, হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের নির্দেশিত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের দলের দায়িত্ব পালন করবেন চেয়ারম্যান হিসেবে। আর বেগম রওশন এরশাদ, যিনি আমাদের চেয়ারম্যানের পতœী, তিনি সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করবেন।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here