তিস্তা নদীশাসনে বড় প্রকল্প নেয়া হচ্ছে

0
19

নিজস্ব প্রতিবেদক:পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি জানিয়েছেন, কুড়িগ্রাম যাতে বন্যা কবলিত না হয় সেজন্য বিভিন্ন প্রকল্প নেয়া হচ্ছে, এখণ চলছে সমীক্ষার কাজ। প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক গতকাল দুপুরে কুড়িগ্রামের কয়েকটি উপজেলার ঘাট ও বাঁধ পরির্শনের সময় এ কথা বলেন। পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে একটি প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে, আরও নতুন প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। এ প্রকল্পগুলো শেষ হলে কুড়িগ্রামকে বন্যা এবং নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে বাঁচাতে সক্ষম হবো। তিস্তা নদীকে শাসন করতে প্রতিবেশি দেশের সাথে আলোচনা চলছে। ভবিষ্যতে দুই প্রতিবেশি দেশই যাতে তিস্তার পানি সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারে সেজন্য ’দেশের টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে। এই তিস্তার পানি দিয়ে ভবিষ্যতে আমরা দুই দেশই উপকৃত হতে পারবো।’তিস্তার ভাঙ্গন রোধে ম্যাগা প্রকল্প সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, ‘টেকনিক্যাল কমিটি নদীর গতিবিধি পর্যবেক্ষন করছে, সমীক্ষা চলছে। সমীক্ষা শেষ হলে আমরা এটার কাজ শুরু করবো। এতো বড় প্রকল্প আমরা যেনতেন ভাবে কাজ শুরু করতে পারবো না। আশা করছি আগামী দুই তিন বছরের মধ্যে নদী ভাঙ্গন কমে আসবে। এলাকাবাসী যাতে বন্যায় প্লাবিত না হয়, ক্ষয়ক্ষতি না হয় সে লক্ষেই এ সরকার কাজ করছে।’প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক গতকাল দুপুরে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার বাংটুর ঘাট, রাজারহাট উপজেলার কালোয়ারচর, উলিপুর উপজেলার নাগড়াকুড়ি টি বাঁধ ও চিলমারী উপজেলার রমনাঘাট এলাকা পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন। এসময় তার সাথে ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মাহফুজুর রহমান, রংপুর ডিভিশনের প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রকাশ, তত্বাবধায় প্রকৌশলী হারুন-অর-রশিদ, কুড়িগ্রামের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: জাফর আলী প্রমুখ।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here