গ্যাসের দামও আরেকদফা বাড়বে

নিজস্ব প্রতিবেদক: টানা তিন বছর বন্ধ থাকার পর আগামী বছর থেকে আবাসিক গ্যাস সংযোগ দেয়া শুরু হবে। শিল্পে গ্যাস সংযোগ আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ রাখা না হলেও শিল্প প্রতিষ্ঠানে গ্যাস সংযোগ দেয়া হচ্ছে অত্যন্ত সীমিতভাবে। আগামী বছর থেকে শিল্প খাতে গ্যাস সংযোগ উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়ানো হবে।
জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, এ’ব্যাপারে নতুন নীতিমালা প্রণয়নের কাজ চ‚ড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। আগামী বছরের প্রথমভাগে আবাসিক গ্যাস সংযোগের ক্ষেত্রে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে নতুন সংযোগ দেয়া শুরু হবে। দেশে চাহিদা মেটানোর মত গ্যাসের মজুদ না থাকায় সরকারকে আমদানীর উপর নির্ভরতা ক্রমান্বয়ে বাড়াতে হচ্ছে। অভ্যন্তরীণ চাহিদার পরিমান দৈনিক ৪ হাজার ২শ এমএমসিএফটি। গ্যাস ফিল্ডগুলো থেকে প্রতিদিন পাওয়া যায় ২ হাজার ৭৫০ এমএমসিএফটি। দৈনিক ৫শ এমএমসিএফটি এনএলজি আমদানী করা হচ্ছে আগামী জানুয়ারি নাগাদ আরো ৫শ এমএমসিএফটি গ্যাস আমদানী করা হবে। বেসরকারিখাতের কোম্পানিগুলোর মাধ্যমে বিদেশ থেকে গ্যাস আমদানী করা হয়। অতিরিক্ত ৫শ নিয়ে মোট ১ হাজার এমএমসিএফটি গ্যাস নিয়ে সরকারের হাতে থাকবে ৩ হাজার ৭৫০ এমএমসিএফটি গ্যাস। ৫শ এমএমসিএফটি গ্যাস আসার পরই নতুন গ্যাস সংযোগ দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
জানা যায়, আবাসিক সংযোগের জন্য তিন লক্ষাধিক আবেদন জমা পড়ে আছে। গ্যাসের ঘাটতির প্রেক্ষিতে বছরের পর বছর গ্যাস সংযোগ দেয়া বন্ধ রাখা হয়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বহুস্থানে গ্যাসের সরবরাহের সংকটও রয়েছে। কখনও কখনও এই সংকট তীব্র আকার নেয়। আবাসিক সরবরাহ সংকটের পাশাপাশি শিল্প কারখানায়ও গ্যাস সংকট প্রকট হয়ে দেখা দেয়।
আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিল নাগাদ নতুন গ্যাস সংযোগ দেয়ার পর পর গ্যাসের দামও বাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে। গৃহস্থালী সংযোগে এক চুলায় বাড়িয়ে ৯৫০ টাকা ও দুই চুলায় ৯৭৫ টাকা করা হয়েছে। একলাফে এই অস্বাভাবিক মুল্যবৃদ্ধিতে গ্রাহক সাধারনের মধ্যে তীব্র বিরূপ প্রতিক্রিয়া হয়েছে। আগামীতে অপেক্ষাকৃত সহনীয় পর্যায়ে দাম বাড়ানোর চিন্তা করা হচ্ছে।
জানা যায় খসড়া নীতিমালা গ্যাস সংযোগের ক্ষেত্রে দুর্নীতি, অনিয়মরোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হয়েছে। সংযোগের জন্য আবেদনকারীর আবেদন পাওয়ার পর সংশ্লিষ্ট কোম্পানির কর্মকর্তাকে পনের দিনের জন্য জরিপ চালাতে হবে। সংযোগ দেয়া সম্ভব না হলে আবেদনকারিকে কারণ উল্লেখ করে ২৫ দিনের মধ্যে লিখিতভাবে জানাতে হবে। চাহিদাপত্র দেয়া হলে দেয়ার ৩০ দিনের মধ্যে নতুন সংযোগ দিতে হবে। আবেদনকারিকেও নির্ধারিত হারে এককালিন ও বার্ষিক ফিসহ বিধিবদ্ধ নিয়মাবলী পূরণ করেই আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here