পল্লীবন্ধুর রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থার সাথে সাংঘার্ষিক নয়-গোলাম মোহাম্মদ কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশের নব্বই ভাগ মানুষের মনের আশা পূরণ করেছেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করে দেশের সকল ধর্মের মানুষের অধিকার নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সংবিধানে যেভাবে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করেছেন তা অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থার সাথে সাংঘার্ষিক নয়। তিনি বলেন, মসজিদের উন্নয়নে যেমন বরাদ্দ দিয়েছেন, তেমনিভাবে মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডা-তে বরাদ্দ দিয়েছেন। গতকাল দুপুরে গুলশান-০১ সার্কেলের ইমানুয়েলস্ মিলনায়তনে জাতীয় ওলামা পার্টির ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এ কথা বলেন। জাতীয় ওলামা পার্টির আহবায়ক ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরো বলেন, ৯ম সংসদে সংবিধানের অনেক সংশোধন হয়েছে, কিন্তু রাষ্ট্রধর্ম বিষয়ে কোন সংশোধনী বা পরিবর্তন আনতে হয়নি। তিনি বলেন, যারা অন্যায় ও অবিচার করে তারাই ইসলাম ও মুসলিমদের ভয় করে। তাই বিশে^র বিভিন্ন স্থানে মুসলামদের ওপর আঘাত আসছে। জাতীয় পার্টি রাষ্ট্র ক্ষমতায় গেলে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের ভাতা দেয়ার ব্যবস্থা করে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বপ্ন পূরণ করবে। দেশের ওলামাদের ঐক্যবদ্ধ হতে আহবান জানান জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান, যাতে জাতীয় পার্টি আগামী নির্বাচনে দেশের দায়িত্ব নিতে পারে।বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, ইসলাম ছাড়া হতদরিদ্র মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন নিশ্চিত করা সম্ভব নয়। তাই পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বপ্নের ইসলামী মূল্যবোধের সরকার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে জাতীয় পার্টি কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ইসলামী মূল্যবোধে বিশ^াসী মানুষগুলো এক হলে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করতে সমর্থ হবে। সকল মতভেদ ভুলে ইসলামপন্থি আলেম ওলামাদের ঐক্যবদ্ধ হতে আহবান জানান জাতীয় পার্টি মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি। বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এস.এম. ফয়সল চিশতী, ওলামা পার্টির মাওলানা সাইখুল হাদিস, ড. আবুল কাইয়ুম আজাহারী, মাওলানা মোহাম্মদ এবিএম মোস্তফা কামাল চৌধুরী, মাওলানা মোহাম্মদ মুফতি মাহমুদি, মাওলানা মোহাম্মদ শফিউল্লাহ জিহাদী, মাওলানা ক্বারী মোহাম্মদ আজিজুল হক সরকার, মাওলানা মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন, পরিচালনা করেন- জাতীয় ওলামা পার্টির সদস্য সচিব মাওলানা মোহাম্মদ খলিলুর রহমান সিদ্দিকী। উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, আলমগীর সিকদার লোটন, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নোমান, এ্যাড. নুরুল আজহার, ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম জহির, মোস্তফা আল মাহমুদ, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, সুলতান আহমেদ সেলিম, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য- ফখরুল আহসান শাহজাদা, মোস্তাফিজুর রহমান নাইম, এম.এম. রাজ্জাক খান, এনাম জয়নাল আবেদিন, মোস্তফা কামাল, কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সাত্তার গালিব, এ্যাড. আবু তৈয়ব, এ্যাড. জিন্নাহ, এ্যাড. মমতাজ, হাজী সিরাজ, আব্দুস সাত্তার, ফারুক শেঠ, প্রিন্সিপাল গোলাম মোস্তফা, জাতীয় ছাত্রসমাজের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here