আবারও অস্থির পেঁয়াজের বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুচরা বাজারে পেঁয়াজের দাম ২০০ টাকা পার হয়েছে । ইংরেজি নতুন বছরের শুরুতেই বৃষ্টির অজুহাতে আবারও অস্থির পেঁয়াজের বাজার। গত তিন দিনে লাফিয়ে লাফিয়ে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ৭০-৮০ টাকা। এর আগে, দীর্ঘ দিন ধরেই পেঁয়াজ আমদানির জন্য প্রতিবেশী ভারতের ওপর নির্ভরশীল ছিল। গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়ায় বাংলাদেশে বাজারে অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায় পেঁয়াজের দাম। রেকর্ড মুল্য ২৫০ টাকায় পৌঁছে যায় পেঁয়াজের কেজি । ভারতের থেকে পেঁয়াজের রফতানি বন্ধ থাকা এবং বাংলাদেশের বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকা সহ নানা কারণে গত বছরের শেষভাগে পেঁয়াজের বাজার অস্থির ছিল। পরে বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি আর মৌশুমের নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসায় কিছুটা নি¤œমুখী ছিল নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যের দাম কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। সঙ্গে তীব্র শীতও রয়েছে। যার কারণে ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ ওঠাতে পারছেন না কৃষক। ফলে সরবারহ কমায় আবার বেড়েছে দাম।
গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকে। গত তিন দিনে পাইকারি বাজারে দেশি পেঁয়াজের কেজিপ্রতি দাম বেড়েছে ৪০-৫০ টাকা আর খুচরায় বেড়েছে ৭০-৮০ টাকা। গতকাল সকালে খুচরা বাজারে ভালো মানের দেশি পেঁয়াজ কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৯০ টাকায়। যা এক সপ্তাহ আগেও ছিল ১০০-১২০ টাকা কেজি। চীন-মিসরের বড় আকৃতির পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৮০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এক সপ্তাহ আগে যা ছিল ৫০-৬০ টাকা। পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, গত তিন দিন পেঁয়াজের সরবারহ কম থাকায় গত শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত বাজার চড়া ছিল। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি আর তীব্র শীতের কারণে কৃষক ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ ওঠাতে পারেননি। এ কারণে বাজারে পেঁয়াজ কম এসেছে। ফলে দাম বেড়েছে। তবে গতকাল বাজার একটু কমতির দিকে। আগামী ২-৩ দিনে দাম আরও কমে যাবে। আবহাওয়া ভালো থাকলে কৃষক ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ ওঠাতে পারবে। বাজার স্বাভাবিক হবে। আজকে পাইকারি বাজারে মুড়িকাটা জাতের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৩০-১৪০ টাকায়। আমদানি করা মিসরের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭৫-৮০ টাকা, পাকিস্তানি পেঁয়াজ ১২৫-১৩০ টাকা এবং চায়না ৬০-৬৫ টাকা। সারাদেশেই বৃষ্টি হয়েছে। শনিবারও সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়েছে। দিনের বাকি সময়েও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে আজ রোববার থেকে বৃষ্টি প্রায় বন্ধ হয়ে যেতে পারে। আর বৃষ্টি শেষ হওয়ার পরপরই দেশে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here