২৪ ঘণ্টায়আক্রান্ত ৯৯ আবার করোনা-আতঙ্কে চিন

0
309

নিউজ ডেস্ক: ্আবার ভাইরাস আতঙ্ক ! চিনের মূল ভূখ-ে এক দিনেই প্রায় একশো জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শনিবার সে দেশে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় মোট ৯৯ জনের দেহে এই ভাইরাস ছড়িয়েছে। সংখ্যার নিরিখে যা শুক্রবারের থেকে দ্বিগুণেরও বেশি। চিনের সরকারি মাধ্যমে টুইট করে জানানো হয়েছে, এক দিনে আক্রান্তের নিরিখে এটি একটি রেকর্ড। চিনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশন (এএইচসি) জানিয়েছে, গত ৬ মার্চের পরে এই প্রথম চিনে এক দিনে এত জন করোনায় সংক্রমিত হলেন। চিনে এই মুহূর্তে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজার ৯৬ জন। বিশ্বের করোনা-আক্রান্তের নিরিখে আমেরিকা, স্পেন, ইটালি, ফ্রান্স এবং জার্মানির পরেই ছ’নম্বরে রয়েছে শি চিনফিংয়ের দেশ। ওই দেশের হুবেই প্রদেশের উহান থেকেই প্রথম এই ভাইরাস ছড়িয়েছিল বলে মনে করেন অনেকে। ইতিমধ্যেই হুবেই প্রদেশে সংক্রমণের জেরে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২১৯ জনের। এক দিকে, নতুন করে এই রেকর্ড সংখ্যক সংক্রমণের ফলে যেমন চিন্তিত চিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়, অন্য দিকে দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে করোনাভাইরাসের বাহ্যিক উপসর্গ নেই, অথচ সংক্রমণ ঘটেছে, এমন মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধির হারও। গত শনিবার চিনে এ ধরনের ৬৩টি কেস সামনে এসেছে। সে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুক্রবার ওই সংখ্যাটা ছিল ৩৪। পাশাপাশি, যে ৯৯ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে মাত্র দু’জন স্থানীয় বাসিন্দা, বাকিরা বিদেশফেরত।
ওই ৯৯ জন সংক্রমিতের মধ্যে বেশির ভাগই ছড়িয়ে রয়েছেন চিনের বাণিজ্যিক কেন্দ্র সাংহাইতে। সেখানকার মিউনিসিপ্যাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, গত কাল সাংহাইতে ৫২ জন আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। ওই ৫২ জনের প্রত্যেকেই বিদেশফেরত। এর মধ্যে ৫১ জনই শুক্রবার একই বিমানে রাশিয়া থেকে সাংহাইতে ফিরেছিলেন। অন্য এক জন কানাডা থেকে ফিরেছিলেন। সাংহাইয়ের মতো চিনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলেও এই ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। হেইলংজিয়াং প্রদেশে যে ২১ জন সংক্রমিত হয়েছেন, তাঁরাও সকলে রাশিয়া থেকে দেশে ফিরেছিলেন বলে জানিয়েছে চিন। বদেশফেরতদের মাধ্যমে করোনা-সংক্রমণ ঠেকাতে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ব্যবস্থা নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। রাশিয়ার দিকে সুইফেনহে সীমান্ত আগামী ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হেইলংজিয়াং প্রশাসন।

Share on Facebook