ঢাকার বাংলা একাডেমিতে আন্তর্জাতিক ‘হে উৎসব’ মাতালেন কলকাতার কবি জয় গোস্বামী, সাকিল আহমেদরা

0
161

কালবেলা প্রতিবেদক : বাংলায় যা নবান্ন উৎসব অর্থাৎ নতুন ফসল ফলানোর উৎসব। ইংরাজীতে তা হে বা খড়ের উৎসব। শনিবার শেষ হল ঢাকার আন্তর্জাতিক ‘হে’ উৎসব। আয়োজক বাংলাদেশের দৈনিক ইংরাজী সংবাদপত্র ‘দ্য ডেইলি স্টার’। উৎসব মাতালেন ২৯ টি দেশের কবি, সাহিত্যিক, সমালোচকরা। তিনদিনের এই বর্ণময় উৎসবে যোগ দেন ভারত থেকে আমন্ত্রিত কবি জয় গোস্বামী এবং সাংবাদিক ছড়াকার সাকিল আহমেদ। জয় গোস্বামীকে ঘিরে কবিতা আড্ডায় বাংলা একাডেমি নজরুল মঞ্চ শুক্রবারের সন্ধ্যে যেন জনজোয়ার। একের পর এক কবিতা পাঠ করে মুগ্ধ করেন পশ্চিমবঙ্গ নজরুল আকাদেমির সভাপতি কবি জয় গোস্বামী। শনিবার ছিল ছড়ার আসর। মাত করলেন কবি ও ছড়াকার সাকিল আহমেদ। দুটি অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন কবি অধ্যাপক সামিম রেজা ও আকাদেমি পুরস্কার প্রাপ্ত ছড়াকার আসলাম সানী। ঢাকার শাহবাগের বাংলা একাডেমী তখন যেন চাঁদের হাট। মঞ্চ আলোকরে ছড়া পাঠ করলেন সাকিল আহমেদ, রফিকুল হক দাদুভাই, খালেক বিন জয়নুদ্দিন, এম.আর. মনজু, নাহার ফরিদ খান, আনজির লিটন, নাসের মাহমুদ প্রমুখ।
বাংলাভাষাভাষি কবিদের পাশাপাশি পৃথিবীর ভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ইংরেজি সাহিত্যের দিক পাল লেখক ঔপন্যাসিকদের সমাবেশে জমে উঠেছিল ডেইলি স্টারের আয়োজনের এই ‘হে’ উৎসব।  বাংলার নবান্নর আদলে আন্তজার্তিক এই উৎসবের নৈশভোজ হয় ঐতিহ্যবাহী ঢাকা ক্লাবে। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রী নাট্য ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর। ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম। ইংরেজি সাহিত্য ঘিরে যারা চর্চা করেন সেই তরুণ প্রজন্মের উৎকর্ষ সাধক এই মেলার থিম ছিল ‘কল্পনায় বিশ্ব’। উপস্থিত ছিলেন স্টিফেন হকিংস কন্যা লাকি হকিংস, মহম্মদ জাফর ইকবাল, ডয়েট গার্নার, জলি জলিভেট, লন্ডনের ক্যাটি গ্রীন প্রমুখ।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here