বিনিয়োগের বাধা ব্যাংক ঋণের চড়া সুদ : অর্থমন্ত্রী

0
30

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঋণের উচ্চ সুদকে বিনিয়োগের বড় বাধা হিসেবে চিহ্নিত করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ব্যাংকগুলোকে সুদের হার কমিয়ে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন।
রোববার ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম বাংলাদেশ (আইবিএফবি) আয়োজিত সফল ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহ্বান জানান। অর্থমন্ত্রী বলেন, “আমাদের দেশে বিনিয়োগের বড় বাধা হচ্ছে ঋণের সুদ হার। ব্যাংকগুলো নিজেরাই সুদ হার নির্ধারণ করে থাকে। তারা (ব্যাংক) এসএমইকে সেইভাবে সহায়তা করে না।” কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত অক্টোবর শেষে ব্যাংক খাতে ঋণের গড় সুদ হার দাঁড়ায় ১১ দশমিক ৩৫ শতাংশ।
উদ্যোক্তারা অনেকদিন ধরেই সুদের হার কমিয়ে এক অংকের ঘরে নামিয়ে আনার দাবি জানিয়ে আসছেন। মুহিত আক্ষেপ করে আসছেন বিনিয়োগে খরা নিয়ে।
অর্থনীতিতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের অবদানের প্রসঙ্গ তুলে অর্থমন্ত্রী বলেন, “শিল্পোৎপাদনের প্রায় ৯৩ থেকে ৯৫ ভাগই হচ্ছে এসব উদ্যোক্তাদের মাধ্যমে।
“এজন্য আমি তাদেরকে (ব্যাংকগুলোকে) বলব, এসএমই খাতকে সহায়তা করতে, সেইভাবে সুদ হার নির্ধারণ করতে।”
সম্মাননা পাওয়া উদ্যোক্তারাও ঋণের সুদ হার কমানোর দাবি জানান।
জি এম নূর ইসলাম রনি নামের একজন উদ্যোক্তা বলেন, “আমরা আরও ভালো করতে পারতাম, যদি সহজে ও সুলভে মূলধন পাওয়া যেত।
“ব্যাংকে ঋণের জন্য গেলে তারা নানাভাবে নিরুৎসাহিত করে। অবাক হই, তাহলে ব্যাংক কি কাজ করতে চায়? আবার ঋণ পাওয়া গেলেও তার সুদ হার চড়া।”
অনুষ্ঠানে আইবিএফবি সভাপতি হাফিজুর রহমান খান, এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কে এম হাবিব উল্লাহ ও আইবিএফবির সাবেক সভাপতি মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।
রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে এই অনুষ্ঠানে ১৪ জনকে ‘সফল ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা সম্মাননা পদক-২০১৪’ দেওয়া হয়।
জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের সহায়তায় সফল উদ্যোক্তাদের মনোনয়ন দেয় আইবিএফবি। ২০১৪ সালের সম্মাননার জন্য ২৩টি জেলার ৩৮টি উপজেলা থেকে ৬০ জন উদ্যোক্তাকে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা মনোনীত করেন। তাদের মধ্যে থেকে বিচারক কমিটি ১৪ জনকে চূড়ান্তভাবে বেছে নেয়।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here