আবারো গুজব, আসছে ২৫৬ জিবি স্টোরেজের আইফোন

0
234

কালবেলা ডেস্ক : নতুন প্রজন্মের আইফোন প্রকাশের সময় আস্তে আস্তে এগিয়ে আসছে। কয়টা দিন পরই গোটা দুনিয়ার আইফোন প্রত্যাশীদের কাছে সবকিছু পরিস্কার হয়ে যাবে। কেননা ১২ সেপ্টেম্বর বিশ্ববাসীর সামনে পণ্যটি নিয়ে হাজির হচ্ছে প্রযুক্তিপণ্যের জায়ান্ট খ্যাত প্রতিষ্ঠানটি। তবে পরবর্তী প্রজন্মের আইফোন উন্মোচনের এ খবর অ্যাপলের পক্ষ থেকে আসেনি বলে এটি অনুমানিত তথ্য হিসেবে বিবেচিত। এদিকে পণ্যটিকে ঘিরে গুঞ্জনও বাড়ছে। ঘুরে ফিরে আবারো এখন সেই গুজব যে নতুন আইফোন ২৫৬ জিবি স্টোরেজে আসছে। কিন্তু এবার জোর দাবি করেই তথ্যটি নিশ্চিত করেছে সুত্র।
প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট তাইওয়ানের সেই সুত্রটির বিবৃতি দিয়ে এখনকার প্রতিবেদনগুলোতে জানানো হয়, নতুন আইফোন মডেলগুলোতে থাকছে ২৫৬জিবি স্টোরেজ। তাদের দাবি, নতুন স্মার্টফোনগুলোতে এনএএনডি ফ্ল্যাশ চিপের চাহিদা বাড়ায় স্যামসাং সহ এসকে হাইনেক্স এর দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। যে ফোনগুলোতে হার্ডওয্যারটি প্রত্যাশিত সেই তালিকায় আছে আইফোন ৭ এর নাম।
আরেক প্রতিবেদনে বলা হয়, এনএএনডি চিপের মূল্য ২০১৬ সালের চতুর্থ প্রান্তিক পর্যন্ত উর্ধ্বগতিতে থাকবে।
অ্যাপলের চিপ ক্রয়ের বিষয়টি সমালোচনামূলক হতে পারে বলে ধারণা রয়েছে। কারণ গত বছর পুরো এনএএনডি‘র ১৫ শতাংশ ব্যবহার হয়েছিল আইফোন ৬, আইফোন ৬এস সিরিজে। এর আগে ১৬ জিবির বদলে ৩২ জিবি অপশন, এমনকি ৬৪ জিবি মডেল বাদ দিয়ে এর স্থানে ১২৮ জিবি স্টোরেজের আইফোন আসছে বলে গুজব রটে। অবশ্য সে সময় ২৫৬ জিবি ভার্সনের তথ্যটি সেভাবে গুরুত্ব পায়নি।
এখনকার প্রতিবেদনে, পুনরায় সেই তথ্যটি সামনে এনে আইফোন ৭ এবং ৭ প্লাসে ২৫৬ জিবি স্টোরেজ থাকার বিষয়টি ইঙ্গিত দিচ্ছে।
এদিকে জাপানের একটি প্রতিবেদন সাম্প্রতিক খবরগুলোর বিরুদ্ধ মত প্রকাশ করে বলছে এ বছর ৭ আর ৭ প্লাস শুধু নয় সঙ্গে ৭ প্রো মডেলও থাকবে। কারও কারও ধারণা নামেমাত্র নকশা পরিবর্তনের ফলে অ্যাপল এর নাম দিতে পারে ৬এসই।
প্রকাশিত সব তথ্যের ভিত্তিতে ১২ সেপ্টেম্বরের অপেক্ষায় থাকলেও বিশ্বখ্যাত তথ্য ফাঁসকারী আরেক সুত্রের দাবি ১৬ সেপ্টেম্বের থেকে বিশেষভাবে বিপণী কেন্দ্রগুলোতে বিক্রি হবে নতুন আইফোন। এ বছর অ্যাপল আইফোনের ২১৬.৫ বিলিয়ন ইউনিট তৈরি করছে যা গতবারের চেয়ে ৮.২ শতাংশ কম।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here