ঈদের অগ্রিম টিকিট আজ থেকে

0
58

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১৮ আগস্ট আজ শুক্রবার থেকে। ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ২৫ আগস্ট থেকে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে রেলভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এ তথ্য জানান। রেলমন্ত্রী বলেন, ‘এবার ঈদে কাউন্টার থেকে শতভাগ টিকিট বিক্রি নিশ্চিত করা হবে। এর যেন ব্যত্যয় না ঘটে সেদিকে কঠোর নজরদারি রাখা হবে।’ টিকিট কালোবাজারিদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘টিকিট কালোবাজারি নট অ্যাকসেপ্টেবল। কালোবাজারিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
সংবাদ সম্মেলনে রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী জানান, ১৮ থেকে ২২ আগস্ট ঢাকার কমলাপুর ও চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে ঈদযাত্রার আগাম টিকিট  বিক্রি হবে। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কাউন্টারে এই টিকিট পাওয়া যাবে।
তিনি বলেন, ১৮ আগস্ট বিক্রি হবে ২৭ আগস্টের টিকিট। ১৯ আগস্ট বিক্রি হবে ২৮ আগস্টের টিকিট। ২০ আগস্ট  বিক্রি হবে ২৯ আগস্টের টিকিট। ২১ আগস্ট বিক্রি হবে ৩০ আগস্টের টিকিট। ২২ আগস্ট বিক্রি হবে ৩১ আগস্টের টিকিট।
বর্ষায় দেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা খারাপ থাকায় ট্রেনের ওপর এবার বাড়তি চাপ পড়বে জানিয়ে রেলমন্ত্রী  মুজিবুল হক বলেন, চাপ সামলাতে রেলওয়ে সব প্রস্তুতি নিয়েছে। ঈদের সময় প্রতিদিন দেশে প্রায় ২ লাখ ৬৫ হাজার যাত্রী পরিবহন করবে রেলওয়ে। ১৩৮টি কোচ বাড়তি যোগ করা হয়েছে। এ ছাড়া ইঞ্জিনের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে।
তিনি, আগে ঈদের তিন দিন আগে থেকে বিশেষ ট্রেন চলত। এবার ঈদের চার দিন আগে থেকে সাত জোড়া স্পেশাল ট্রেন দিচ্ছি, তা চলবে ঈদের পর সাত দিন পর্যন্ত।
এবার ঈদ উপলক্ষে ২৯ আগস্ট থেকে ১ সেপ্টেম্বর এবং ঈদের পরে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ সেপ্টেম্বর সাত জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ, রাজশাহী, পার্বতীপুর এবং চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুর রুটে যাত্রী পরিবহন করবে এসব ট্রেন।
শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে যাতায়াতের জন্য ঈদের দিন ভৈরববাজার থেকে কিশোরগঞ্জ এবং ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ রুটে দুটি ট্রেন চলবে।
বন্যায় উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হলেও ঈদযাত্রার বিষয়টি মাথায় রেখে আলাদা প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে এক প্রশ্নের জবাবে জানান রেলমন্ত্রী।
তিনি বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের ওপর তো আমাদের হাত নেই। তারপরও আমাদের চেষ্টা আছে। সেখানে জনবল দেওয়া আছে। আশা করি ঈদের আগে রেললাইনগুলো মেরামত করা যাবে। আমরা সবশেষ চেষ্টা করব।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here