কালেঙ্গায় পান চাষের সুযোগ চায় আদিবাসীরা

0
15

মো. মামুন চৌধুরী,হবিগঞ্জ: জেলার চুনারুঘাট উপজেলার কালেঙ্গা আদিবাসী পুঞ্জি এলাকার পরিত্যক্ত জমিতে পান চাষের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে প্রয়োজনীয় সুযোগের অভাবে পান করতে পারছেন না আদিবাসীরা। তাই সুযোগ পেলে পান করে নিজেদের রোজগারের আরেকটি চলার পথ তৈরী করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন তারা।
এদিকে জেলার বাহুবল উপজেলার আলীয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জি ও বৈরাগীপুঞ্জিতে আদিবাসীরা পান চাষ করছেন। তাদের উৎপাদিত পান দেশের চাহিদা পূরণ করে কিছু কিছু বিদেশেও রপ্তানী হয়ে থাকে।
সূত্র জানায়, হবিগঞ্জের পাহাড়ি মাটিতে খাসিয়া পান চাষের বিরাট সম্ভাবনা রয়েছে। সবদিকে বিবেচনায় নিয়ে কালেঙ্গার আদিবাসীরা চান পান চাষে মনযোগী হতে। যদিও প্রাচীনকাল থেকে তারা নিজ নিজ বাড়িতে, নিজেদের খাবারের জন্য কিছু কিছু পান চাষ করছেন। অনেকে এরমধ্য থেকে কিছু পান স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতে পারছেন।
এ বিষয়ে কালেঙ্গা বনে বসবাসকারী কালিয়াবাড়ি আদিবাসী পুঞ্জির হেডম্যান বিনয় দেববর্মা ও কৃষ্ণছড়া পুঞ্জির হেডম্যান উমেশ খাড়িয়া বলেন- পান চাষ করতে সুযোগ চান। সুযোগ পেলে তারা এ পাহাড়ের পতিত জমি আবাদ করে পান চাষে বিপ্লব ঘটাবেন। তাদের দুই পুঞ্জিতে প্রায় ৭০টি পরিবার বসবাস করছে। প্রত্যেক পরিবারে অভাব নিত্য হয়ে আছে। তাই সরকারী সার্বিক সহযোগীতা নিয়ে তারা পান চাষ করে অভাব ঘোচাতে চান।
পান চাষের ব্যাপারে হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোঃ ফজলুর রহমান জানান, জেলার বাহুবলে পাহাড়ে সাঁচি ও স্থলে মিষ্টি পানের আবাদ হয়েছে প্রায় ৫৯৮ একর জমিতে। পান চাষের উন্নয়নে আমরা কাজ করছি। চাষীদের নানাভাবে পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।
তিনি জানান, এরমধ্যে সম্প্রতি এমপি কেয়া চৌধুরী উদ্যোগ নিয়ে আধুনিক পান চাষের ওপর প্রশিক্ষণ নিয়ে আসেন। এ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে, আলীয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জির পান চাষীদের মাঝে।

Share on Facebook

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here