admoc
Kal lo

,

admoc
Notice :

পাঁচ বছরে মারা গেছে সাড়ে ১১হাজার মানুষ

Untitled-2

নীলফামারী প্রতিনিধি: গেল পাঁচ বছরে (২০১১-২০১৫ পর্যন্ত) সড়ক দুর্ঘটনায় গোটা দেশে ১১হাজার ৫৮৪জন মানুষ মারা গেছেন আর আহত হয়েছেন ৮৬৬৪জন।
প্রশিক্ষিত না হওয়ার কারণে দুর্ঘটনার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে বলে জানানো হয়েছে নীলফামারীতে অনুষ্ঠিত এক কর্মশালায়।
সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের বাসটার্মিনালে “পরিবহন চালক ও সহকারীদের নিয়ে বাস্তব প্রশিক্ষণ কর্মশালা” র আয়োজন করা হয় জেলা পুলিশের উদ্যোগে।
সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপ নীলফামারী জেলা কমিটির সভাপতি শাহজাহান আলী চৌধুরীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খান।
বিশেষ অতিথি হিসেবে নীলফামারী পৌরসভা মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম জেলা কমিটির সদস্য সচিব শফিকুল আলম ডাবলু বক্তব্য দেন।
পুলিশের উপ-পরিদর্শক(এসআই) আনোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় কর্মশালায় সড়ক দুর্ঘটনার কারণ উপস্থাপন করেন সহকারী পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) আলতাফ হোসেন।
অন্যান্যের মধ্যে জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন, বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মুজিবুদৌলা জকি, ট্রাক ট্যাংক লড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম রহমান ডালু ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুর মহব্বত বক্তব্য দেন।
সহকারী পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন কর্মশালা উল্লেখ করেন, দেশে ৫হাজার কিলোমিটার মহাসড়ক এবং ১লাখ ৩৫হাজার কিলোমিটার অন্যান্য সড়ক রয়েছে। ওই সময়ে(পাঁচ বছরে) ৯৪১২টি দুর্ঘটনা ঘটে।
বেপড়োয়া গতিতে চালানো, মদ্যপ অবস্থায়, অদক্ষ চালক, ট্রাফিক আইন না মানাসহ বিভিন্ন কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে বলে জানান তিনি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খান জানান, চালক পথচারী সবাইকে সচেতন হতে হবে। সবার আগে যারা চালক তাদের প্রশিক্ষিত হতে হবে এবং ট্রাফিক আইন মেনে চলতে হবে। তাহলে দুর্ঘটনা অনেকাংশে হ্রাস পাবে।
জেলা পুলিশের পক্ষ্য থেকে চালক ও সহকারীদের প্রশিক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন পুলিশ সুপার।
পরে প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া ৩০জন চালক ও সহকারীকে সনদ পত্র প্রদান করেন অতিথিরা।

Share Button
Share on Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী